সুরাঙ্গ
এক বা একাধিক সুরশৈলী নিয়ে যে মৌলিক সুরবিন্যাস তৈরি হয়, তা নানা সুরে ব্যবহৃত হয়। এর ফলে ওই সুরশৈলী একটি অঙ্গে পরিণত হয়। যেমন- মল্লার অঙ্গ. কানাড়া অঙ্গ ইত্যাদি।  সাধারণ ভাবে একে অঙ্গ বলা হয়।
ঊর্ধ্বক্রমবাচকতা { | সুরাঙ্গ | | সুরশৈলী | সুর বিন্যাস | সুর | স্বরবিন্যাস | স্বর | সাঙ্গীতিক স্কেল | সঙ্গীতোপযোগী ধ্বনি | শ্রবণ যোগাযোগ | যোগাযোগ | বিমূর্তন | বিমূর্ত সত্তা | সত্তা | }

ব্যাখ্যা: সুরাঙ্গের সাথে অন্যান্য সুরের সমন্বয়ে তৈরি হয় সুরশৈলী। রাগ। সুরাঙ্গ নানা ধরনের হতে পারে। যেমন