নিওপ্রোটারোজোয়িক যুগ
ইংরেজি : Neoproterozoic
প্রোটেরোজোইক কাল-এর তৃতীয় যুগ। এই যুগে ১০০ কোটি বৎসর আগে এই যুগের সূচনা হয়েছিল। এই যুগ শেষ হয়েছিল ৫৪ কোটি ২০ লক্ষ বৎসর আগে।

বরফ-গোলক সদৃশ পৃথিবী

মেসোপ্রোটারোজোয়িক অধিযুগের ১১ কোটি বৎসর আগে নতুন রোডিনা মহা-মহাদেশর সৃষ্টি হয়। ১০০ কোটি বৎসরের দিকে এই মহামহাদেশের ভাঙন শুরু হলেও, এই যুগের ৭৫ কোটি বৎসর পূর্ব-কাল অবধি এই মহা-মহাদেশটি মোটামুটিভাবে টিকে ছিল।
এই যুগের শেষে রোডিনা মহা-মহাদেশ অনেকটাই বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল। এই মহা-মহাদেশটি প্রাথমকিভাবে তিনটি ভাগে বিভাজিত হয়েছিল। এই ভাগ তিনটি হলো — প্রোটো লাউরাসিয়া (Proto-Laurasia), প্রোটো-গণ্ডোওয়ানা (Proto-Gondwana) এবং ক্ষুদ্রাকার কঙ্গো ক্রেটন। প্রোটো লাউরাসিয়া দক্ষিণ মেরুর দিকে ঘুরে যায়। পক্ষান্তরে এর উল্টোদিকে ঘুরে প্রোটো-গণ্ডোওয়ানা। ৬০ কোটি বৎসর আগে কঙ্গো ক্রেটন এই দুটি মহা-মহাদেশের মধ্যস্থলে চলে আসে। সব মিলিয়ে তৈরি হয় একটি বৃহৎ মহা-মহাদেশ। একে বিজ্ঞানীরা নাম দিয়েছেন প্যান্নোশিয়া (Pannotia)

এই যুগে  এসেছিল
দ্বিতীয় বরফযুগ ক্রায়োজেনিয়ান বরফযুগ। এই বরফযুগ সংঘটিত হয়েছিল ৮৫ কোটি বৎসর থেকে ৬৩ কোটি ৫০ লক্ষ বৎসর আগে।
বিজ্ঞানীরা মনে করেন যে, এই বরফযুগে সারা পৃথিবী বরফে ঢেকে গিয়েছিল। বলে পৃথিবী একটি বরফের বলে পরিণত হয়ে গিয়েছিল। এই কারণে সেই সময়ের পৃথিবীকে কখনো কখনো তুষার-গোলকীয় পৃথিবী (Snowball Earth এই যুগের শেষের বরফযুগের সূচনা হলে ত্বকের কাঠিন্যতা দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছিল এই যুগে বহুকোষীয় জীবের বিকাশ ঘটেছিল ব্যাপকভাবে। এই যুগেই প্রাণিজগতের সূচনা হয়েছিল।

মারিনোয়ান আন্ত-বরফযুগের শেষে এই অধিযুগে পৃথিবীর তাপামাত্রার পরিবর্তন ঘটেছিল দ্রুত। এর ফলে নানা প্রজাতির প্রাণীর যেমন বিলুপ্তি ঘটেছিল, তেমনি বিবর্তনের ধারায় জীবজগতে নতুন প্রজাতির আবির্ভাব ঘটেছিল। বিশেষ করে কলাযুক্ত বহুকোষীয় প্রাণীর বিকাশ ঘটেছিল এই সময়। বিশেষ করে ইউমেটাজোয়া উপ-জীবরাজ্যের প্রাণির আবির্ভাব ঘটেছিল এই অধিযুগে। এই অধিযুগের শেষের দিকে ইউমেটাজোয়া উপজীবরাজ্যের প্রাণীর পাশাপাশি ডুটারিস্টোমিয়া ঊর্ধ্বপর্বের প্রাণিদের আবির্ভাব ঘটেছিল সাগরের পানিতে।

এই যুগকে তিনটি অধিযুগে ভাগ করা হয়েছে। এই ভাগগুলো হলো

১. টোনিয়ান অধিযুগ: ১০০-৭২ কোটি খ্রিষ্টপূর্বাব্দ
২.
ক্রাইয়োজেনিয়ান অধিযুগ:  ৭২-৬৩.৫ কোটি খ্রিষ্টপূর্বাব্দ
৩.
এডিয়াকারান অধিযুগ: ৬৩.৫-৫৪.১ কোটি  খ্রিষ্টপূর্বাব্দ


সূত্র :
http://essayweb.net/geology/timeline/mesoproterozoic.shtml
http://en.wikipedia.org/wiki/Neoproterozoic