অগ্নি
বানান বিশ্লেষণ :অ+গ্+ন্+ই।
উচ্চারণ:
og.ni (ওগ্.নি)
শব্দ-উৎস: সংস্কৃত অগ্নিঃ> বাংলা অগ্নি
রূপতাত্ত্বিক বিশ্লেষণ: অগ্ (গমন করা) + নি, কর্মবাচ্য
পদ: বিশেষ্য
১. ঊর্ধ্বক্রমবাচকতা { দহন | জারণ | রাসায়নিক বিক্রিয়া | রাসায়নিক প্রক্রিয়া | প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া | দৈহিক প্রক্রিয়া | দৈহিক সত্তা | সত্তা |
অর্থ:
বাংলাতে সাধারণ অর্থ আগুন। এর সাধারণ ধর্ম দহন করা এবং এর ফলে আলো ও তাপ উৎপন্ন করা। কখনো কখনো ধোঁয়া উৎপন্ন হয়। [দেখুন: বিশ্বকোষ। অগ্নি (শক্তি)]
সমার্থক শব্দাবলি: অগ্নি, অনল, আগ, আগুন, পাবক, বহ্নি, বৈশ্বানর, হুতাশন
ইংরেজি:
fire, flame, flaming

হিন্দু মতে হিন্দু মতে অগ্নি তিন প্রকার

ক. ভৌমাগ্নি: কাঠ বা পৃথিবীর পদার্থ থেকে উৎপন্ন আগুন।
খ. দিব্যাগ্নি: জল,বায়ু থেকে উৎপন্ন আগুন। যেমন: আকশের বিদ্যুৎ,বজ্র প্রভৃতি।
গ. জঠরাগ্নি: কোষ্ঠাগ্নি, ক্ষুধা,খাদ্যের পরিপাকের জন্য উদরের উৎপন্ন আগুন।
সমার্থক শব্দাবলি: জঠরজ্বালা, জঠরাগ্নি, জঠরানল।
এছাড়া মানব দেহ বা মনের বিভিন্ন চাহিদাকেও অগ্নিতুল্য কামনা বা অভিব্যক্তিকে রূপকার্থে অগ্নি হিসেবে উল্লেখ করা হয়। যেমন−
যৌবন-অগ্নি: যৌবন সম্ভোগের প্রবল ইচ্ছা, যা কামভাবকে উত্তেজিত দশায় রাখে।
প্রেমাগ্নি: ভালবাসার প্রবল ইচ্ছা, গভীর বিরহ, না পাওয়া প্রেমের জন্য প্রবল উত্তাপ ইত্যাদি।
ক্রোধাগ্নি: অগ্নিতুল্য ক্রোধ
২. ঊর্ধ্বক্রমবাচকতা { নক্ষত্র | মহাকাশীয় বস্তু | প্রাকৃতিক লক্ষ্যবস্তু | এককঅংশ | দৈহিক-লক্ষ্যবস্তু | দৈহিক সত্তা | সত্তা | }
অর্থ: বৃষরাশির একটি নক্ষত্র। পাশ্চাত্য নাম
alnath
[দেখুন: অগ্নি নক্ষত্র]
৩. ঊর্ধ্বক্রমবাচকতা { কম্পাস বিন্দু | দিক | অবস্থানগত সম্পর্ক | সম্পর্ক | বিমূর্তন | বিমূর্ত-সত্তা | সত্তা | }
অর্থ: পূর্ব-দক্ষিণ কোণের মধ্যবর্তী একটি কম্পাসবিন্দু, যা ১৩৫ ডিগ্রী নির্দেশ করে।
ইংরেজি:
South-east

৪. ঊর্ধ্বক্রমবাচকতা {| হিন্দু দেবতা | হিন্দু দৈবসত্তা | দৈবসত্তা | অতিপ্রাকৃতিক সত্তা | অতিপ্রাকৃতিক বিশ্বাস | বিশ্বাস | প্রজ্ঞা | জ্ঞান | অভিজ্ঞা | মনস্তাত্ত্বিক ঘটনা | বিমূর্তন | বিমূর্ত সত্তা | সত্তা | }

অর্থ: হিন্দু পৌরাণিক কাহিনি মতে – অগ্নি নামক শক্তির দেবতা।
    [দেখুন: অগ্নি (পৌরাণিক, হিন্দু)] সমার্থক শব্দাবলি: , অগ্নি, অগ্নিদেবতা।

৫. অগ্ন্যাশায়ে উৎপন্ন পাচক রস।